রাবিতে বিজ্ঞান অনুষদের ডীনস্ এ্যাওয়ার্ড প্রদান

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়, ৯ নভেম্বর ২০২১:
গবেষণাকর্মে কৃতিত্বপূর্ণ অবদানের স্বীকৃতি স্বরূপ রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় বিজ্ঞান অনুষদের দুইজন শিক্ষক ‘ডীনস্ এ্যাওয়ার্ড ২০২০’ অর্জন করেছেন। আজ মঙ্গলবার সকাল ১০:৩০ মিনিটে অনুষদের সভাকক্ষে এক অনাড়ম্বর অনুষ্ঠানে ফিজিক্যাল ও ম্যাথমেটিক্যাল সায়েন্সেস ক্যাটাগরি থেকে পপুলেশন সায়েন্স এন্ড হিউম্যান রিসোর্স ডেভেলপমেন্ট বিভাগের প্রফেসর মো. ইসমাইল তারেক এবং কেমিক্যাল ও বায়োকেমিক্যাল সায়েন্সেস ক্যাটাগরি থেকে প্রাণরসায়ন ও অণুপ্রাণবিজ্ঞান বিভাগের প্রফেসর মো. খালেদ হোসেনকে বিজ্ঞান অনুষদ এই পুরস্কারে ভূষিত করে। বিজ্ঞান অনুষদ এবার প্রথম বারের মতো ‘আর্টিক্যাল এ্যাওয়ার্ড’ও প্রদান করে। প্রাণরসায়ন ও অণুপ্রাণবিজ্ঞান বিভাগের প্রফেসর মো. খালেদ হোসেন এই পুরস্কারও অর্জন করেন। অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর গোলাম সাব্বির সাত্তার এসব পুরস্কার প্রদান করেন। প্রফেসর খালেদ হোসেন দেশের বাইরে অবস্থান করায় তাঁর পক্ষে তাঁর পুত্র আবরার শাহরিয়ার হোসেন পুরস্কার গ্রহণ করে। সম্প্রতি পদার্থবিজ্ঞান বিভাগের প্রফেসর সালেহ হাসান নকীব The World Academy of Sciences (TWAS)-এর ফেলো নির্বাচিত হওয়ায় এই অনুষ্ঠানে তাঁকে সম্মাননা ক্রেস্ট প্রদান করা হয়।

এই অনুষ্ঠানে বিজ্ঞান অনুষদভুক্ত ৮টি বিভাগের ২০১৮ সালের বিএসসি/বি.ফার্ম (সম্মান) শ্রেণিতে ১ম স্থান অধিকারী ৮ জন এবং ৩.৭৫ বা তার বেশি জিপিএপ্রাপ্ত ১৬ জন শিক্ষার্থীকে ‘ডীনস্ এ্যাওয়ার্ড ২০২০’-এ প্রদান করা হয়। উপাচার্য তাদের সম্মাননা ক্রেস্ট ও সনদে ভূষিত করেন। ১ম স্থান অধিকারী শিক্ষার্থীবৃন্দ হলেন- তাওহীদা (গণিত), আইশা তাসনীম (পদার্থবিজ্ঞান), মোসা. শারমিন খাতুন (রসায়ন), মো. কাদেরী কিবরিয়া (পরিসংখ্যান), মুন্না কুমার পোদ্দার (প্রাণরসায়ন ও অণুপ্রাণবিজ্ঞান), অনিক কুমার দে (ফার্মেসী), ফারহানা তানিয়া (পপুলেশন সায়েন্স এন্ড হিউম্যান রিসোর্স ডেভেলপমেন্ট) ও মো. সম্রাট আলী (ফলিত গণিত)।
বিজ্ঞান অনুষদের অধিকর্তা প্রফেসর মো. খলিলুর রহমান খানের সভাপতিত্বে এই অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন উপ-উপাচার্য প্রফেসর চৌধুরী মো. জাকারিয়া ও উপ-উপাচার্য প্রফেসর মো. সুলতান-উল-ইসলাম। সেখানে বিজ্ঞান অনুষদভুক্ত বিভাগগুলির পক্ষে পরিসংখ্যান বিভাগের সভাপতি প্রফেসর মো. গোলাম হোসেন ও নবনির্বাচিত TWAS  ফেলো প্রফেসর ড. সালেহ হাসান নকীব বক্তৃতা করেন। পুরস্কারপ্রাপ্ত শিক্ষকদের মধ্যে প্রফেসর ড. মো. ইসমাইল তারেক ও জুম প্লাটফর্মে যুক্ত হয়ে প্রফেসর ড. মো. খালেদ হোসেন এবং শিক্ষার্থীদের মধ্যে তাওহীদা, মো. রায়হান ইসলাম ও কাদেরী কিবরিয়া ডীনস্ এ্যাওয়ার্ড অর্জনের অনুভূতি ব্যক্ত করেন।
অনুষ্ঠানে উপাচার্য বলেন, বিশ্ববিদ্যালয় জ্ঞান-বিজ্ঞান চর্চার শ্রেষ্ঠ পীঠস্থান। এখানে গবেষণা ও পঠন-পাঠনের মাধ্যমে জ্ঞান সৃজনের পাশাপাশি তা বিকশিতও করা হয়। গবেষণাকর্মের স্বীকৃতিতে ডীনস্ এ্যাওয়ার্ড প্রদানের মাধ্যমে বিশ্ববিদ্যালয়ও যেমন সম্মানিত হলো, তেমনি তা অন্যদেরও গবেষণায় উৎসাহিত করবে। শিক্ষকদের গবেষণায় উৎসাহী করতে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় ইতোমধ্যে বেশ কিছু পদক্ষেপ হাতে নিয়েছে। এর মধ্যে আছে র‌্যাংকিং কমিটি গঠন, সেরা ১০০ গবেষককে স্বীকৃতি প্রদান, গবেষণা সেল গঠন ইত্যাদি।
অনুষ্ঠানে পদার্থবিজ্ঞান বিভাগের প্রফেসর আব্দুল্লাহ শামস বিন তারিক ‘ডীনস্ এ্যাওয়ার্ড’-এর লক্ষ্য ও উদ্দেশ্যসহ সংশ্লিষ্ট বিষয়ে তথ্য-উপাত্ত উপস্থাপন করেন। অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে বিভিন্ন বিভাগের সভাপতি, অনুষদের শিক্ষকবৃন্দ, ভারপ্রাপ্ত প্রক্টর মো. লিয়াকত আলী, জনসংযোগ দপ্তরের প্রশাসক ড. মো. আজিজুর রহমান প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

ড. মো. আজিজুর রহমান
প্রশাসক, জনসংযোগ দপ্তর


All rights reserved © ICT Center, Unversity of Rajshahi 2016.
webmaster@ru.ac.bd