রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস পালিত

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়, ১৪ ডিসেম্বর ২০২০:
আজ সোমবার রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে যথাযোগ্য মর্যাদায় শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস পালন করা হয়েছে। এদিন সূর্যদয়ের সাথে সাথে প্রশাসন, আবাসিক হল ও অন্যান্য ভবনসমূহে জাতীয় পতাকা অর্ধনমিতভাবে উত্তোলন করা হয়। এরপর সকাল ৭:১৫ মিনিটে উপাচার্য ভবন থেকে প্রভাত ফেরি শুরু হয় এবং সকাল ৭:৩০ মিনিটে প্রভাত ফেরিসহ উপাচার্য প্রফেসর এম আব্দুস সোবহান, উপ-উপাচার্য প্রফেসর চৌধুরী মো. জাকারিয়া, রেজিস্ট্রার প্রফেসর এম এ বারীসহ প্রশাসনের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাবৃন্দ বিশ্ববিদ্যালয় শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন এবং শহীদ বুদ্ধিজীবীদের স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে এক মিনিট নীরবতা পালন করেন।
এরপর প্রভাত ফেরিটি শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলাম প্রশাসন ভবনের পশ্চিমে অবস্থিত শহীদ বুদ্ধিজীবী স্মৃতিফলকে উপস্থিত হয় এবং উপাচার্যসহ প্রশাসনের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাবৃন্দ স্মৃতি ফলকে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন এবং বুদ্ধিজীবীদের স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে এক মিনিট নীরবতা পালন করেন। পরবর্তীতে উপাচার্য প্রফেসর এম আব্দুস সোবহান উপস্থিত প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ার সংবাদকর্মীসহ সকলের উদ্দেশ্যে শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস উপলক্ষে বক্তব্য রাখেন। উপাচার্য তাঁর বক্তৃতায় বলেন, পাকিস্তানি হানাদার বাহিনী ও তাদের দোসররা স্বাধীনতা অর্জনের ঠিক দুই দিন আগে বাঙালি জাতির সূর্যসন্তান বুদ্ধিজীবীদের ঘর থেকে ধরে নিয়ে গিয়ে নির্মমভাবে হত্যা করে, যাতে স্বাধীন বাংলাদেশ পৃথিবীর বুকে মাথা উঁচু করে দাড়াতে না পারে। তাঁদের সেই আত্মদানকে অনুপ্রেরণার উৎস হিসেবে গ্রহণ করে আমাদেরকে এগিয়ে যেতে হবে যাতে বঙ্গবন্ধুর আজীবন লালিত স্বপ্নের সোনার বাংলা বিনির্মাণ সহজ হয়। তিনি আরো বলেন, শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস পালন অর্থবহ করতে হলে যে আদর্শ ও চেতনার জন্য এই বুদ্ধিজীবীরা জীবন দিয়ে গেছেন তাকে ধারণ ও তার প্রসারে কাজ করে যেতে হবে। আমাদের কুচক্রী মহলের ষড়যন্ত্র সম্পর্কে সজাগ থাকতে হবে যাতে শহীদ বুদ্ধিজীবীদের এ আত্মদান বৃথা না যায়। এ সময় অন্যদের মধ্যে প্রক্টর ও ছাত্র-উপদেষ্টা (অতি. দা.) প্রফেসর মো. লুৎফর রহমান, জনসংযোগ দপ্তরের প্রশাসক ড. মো. আজিজুর রহমান, শিক্ষা গবেষণা ইনস্টিটিউটের পরিচালক প্রফেসর চিত্তরঞ্জন মিশ্র, পরিবেশ বিজ্ঞান ইনস্টিটিউটের পরিচালক প্রফেসর গোলাম সাব্বির সাত্তার, বিভিন্ন  হল প্রাধ্যক্ষ এবং সহকারী প্রক্টরসহ সংশ্লিষ্ট অন্যরা উপস্থিত ছিলেন।
দিবসটি পালন উপলক্ষে শহীদ স্মৃতি সংগ্রহশালাসহ বিভিন্ন হল প্রশাসন, বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি, বিভিন্ন পেশাজীবী সমিতি ও সংগঠনও বিশ্ববিদ্যালয় শহীদ মিনার ও বুদ্ধিজীবী স্মৃতি ফলকে পুষ্পস্তবক অর্পণ করে।
এদিন শহীদদের আত্মার মাগফিরাত কামনায় বাদ জোহর বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় জামে মসজিদে একটি বিশেষ মোনাজাতের আয়োজন করা হয়। সন্ধ্যায় কেন্দ্রীয় মন্দিরেও একটি বিশেষ প্রার্থনা অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে।
ড. মো. আজিজুর রহমান
প্রশাসক, জনসংযোগ দপ্তর


All rights reserved © ICT Center, Unversity of Rajshahi 2016.
webmaster@ru.ac.bd