রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে ‘বঙ্গবন্ধু জনক জ্যোতির্ময়’ শীর্ষক গ্রন্থের মোড়ক উন্মোচন ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়, ২৯ মার্চ ২০১৮:
আজ বৃহস্পতিবার রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৯৯তম জন্মদিন ও জাতীয় শিশু দিবস উপলক্ষে ‘বঙ্গবন্ধু জনক জ্যোতির্ময়’ শীর্ষক গ্রন্থের মোড়ক উন্মোচন ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। এদিন সকাল ১১টায় বিশ্ববিদ্যালয় সিনেট ভবনে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় বঙ্গবন্ধু পরিষদের উদ্যোগে এই আয়োজনে প্রধান অতিথি ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাক্তন উপাচার্য ও যুক্তরাজ্যে নিযুক্ত বাংলাদেশের সাবেক হাইকমিশনার প্রফেসর এম সাইদুর রহমান খান। অনুষ্ঠানে প্রধান আলোচক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর হারুন-অর-রশিদ। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর এম আব্দুস সোবহান ও উপ-উপাচার্য প্রফেসর আনন্দ কুমার সাহা।
বঙ্গবন্ধু পরিষদ, রাবি শাখার সভাপতি প্রফেসর মোখলেসুর রহমানের সভাপতিত্বে এই অনুষ্ঠানে শুভেচ্ছা বক্তৃতা করেন রাজশাহী-২ আসনের সংসদ সদস্য জনাব ফজলে হোসেন বাদশা। অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে রাজশাহী -৩ আসনের সংসদ সদস্য জনাব মো. আয়েন উদ্দিন, বিশ্ববিদ্যালয়ের কোষাধ্যক্ষ প্রফেসর এ কে এম মোস্তাফিজুর রহমান আল-আরিফ, পাবনা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর মো. রোস্তম আলী, ভারপ্রাপ্ত রেজিস্ট্রার প্রফেসর এম এ বারী, রাবি শিক্ষক সমিতির সভাপতি প্রফেসর মো. নজরুল ইসলাম, মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ও মূল্যবোধে বিশ্বাসী প্রগতিশীল শিক্ষক সমাজের আহ্বায়ক প্রফেসর মো. জুলফিকার আলী, ছাত্র-উপদেষ্টা প্রফেসর জান্নাতুল ফেরদৌস, জনসংযোগ দপ্তরের প্রশাসক প্রফেসর প্রভাষ কুমার কর্মকার, প্রক্টর প্রফেসর মো. লুৎফর রহমান প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।
গ্রন্থের মোড়ক উন্মোচন করে আলোচনাপর্বে অতিথিবৃন্দ বলেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান একাধারে বাঙালি জাতির জনক, স্বাধীনতা সংগ্রামের অবিসংবাদিত মহানায়ক, বিশ্ব ইতিহাসের এক কিংবদন্তি। তিনি এক দিনে বা হঠাৎ করে নেতা হয়ে উঠেননি। একজন সাধারণ রাজনৈতিক কর্মী থেকে ক্রমে নেতৃত্বের সিঁড়ি বেয়ে হয়ে উঠেন জাতির আশা-আকাক্সক্ষা পূরণের স্বপ্নদ্রষ্টা। তাই জাতি সত্তরের নির্বাচনে তাঁর দল আওয়ামী লীগকে এনে দেয় অবিস্মরণীয় বিজয়। বাঙালি জাতীয়তাদী চেতনায় উদ্বুদ্ধ হয়ে তিনি প্রতিষ্ঠা করেন জাতি রাষ্ট্র বাংলাদেশ। বাঙালি জাতির স্বাধীনতা ছিল তার চূড়ান্ত লক্ষ্য। সেই লক্ষ্য অর্জনে ছিলো তাঁর দূরদর্শী প্রয়াস। আলোচ্য গ্রন্থ বঙ্গবন্ধু জনক জ্যোর্তিময় থেকে আমরা তাঁর জীবন ও  কর্মের পাশাপাশি সমকালীন রাজনীতি ও আর্থসামাাজিক বিষয় সম্পর্কেও জানতে পারবো বলেও তাঁরা আশাবাদ ব্যক্ত করেন। একটি নির্ভুল তথ্য-উপাত্ত সমৃদ্ধ গ্রন্থ প্রণয়নের জন্য এর সম্পাদক ও সম্পাদনা পরিষদসহ সংশ্লিষ্ট সকলকে প্রধান আলোচক ধন্যবাদ জানান।
বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর এম আব্দুস সোবহান বঙ্গবন্ধু ও বাংলাদেশ বিষয়ক গুরুত্বপূর্ণ তথ্য-উপাত্ত সমৃদ্ধ বক্তব্য উপস্থাপন করেন।
অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন বঙ্গবন্ধুর পরিষদের সাধারণ সম্পাদক ইতিহাস বিভাগের প্রফেসর চিত্তরঞ্জন মিশ্র।
প্রসঙ্গত, অনুষ্ঠান শুরুর আগে প্রধান আলোচক প্রফেসর হারুন-অর-রশিদ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হলে জাতির জনকের প্রতিকৃতিতে পুষ্পার্ঘ্য অর্পণ করেন।


All rights reserved © ICT Center, Unversity of Rajshahi 2016.
webmaster@ru.ac.bd